Author Topic: মোবাইল ফোনের জন্মকথা  (Read 414 times)

Ashikul Islam

  • Administrator
  • Silver Member
  • *****
  • Posts: 1012
  • মানুষ মরে গেলে পচে যায়, বেঁচে থাকলে বদলায়,
    • http://imashik.com
মোবাইল ফোনের জন্মকথা
« on: January 08, 2014, 08:36:45 PM »
মোবাইল ফোনের জন্মকথা

যোগাযোগের জন্য এখন মোবাইল ফোন সবচেয়ে বড় আশ্রয়। চিঠির যুগ পার হয়ে টেলিফোনের যুগও পার হওয়ার পথে, বাড়ছে অত্যাধুনিক প্রযুক্তির আধুনিক মোবাইলের সুবিধা।

চলুন জেনে আসি মোবাইল ফোনের আদোপাত্ত-
ইন্টারন্যাশনাল টেলিকমিউনিকেশন ইউনিয়ন প্রকাশিত ২০১২ সালের এক তথ্য অনুযায়ী, ৬০০ কোটিরও বেশি মোবাইল ফোন বিক্রি হয়েছে বিশ্বজুড়ে। ওই সময় পৃথিবীর জনসংখ্যা ছিল ৭০০ কোটি।
এ বছরই মোবাইল ফোন পা রাখল ৪০ বছরে। এখন চলছে ৪২ বছর।

মার্টিন কুপার মোবাইল ফোন উদ্ভাবন করেন ১৯৭৩ সালের ৩ এপ্রিল বুধবার। প্রথম ফোন দেন বেল ল্যাবে মোবাইল ফোন নিয়ে কাজ করা তারই এক প্রতিদ্বন্দ্বী প্রকৌশলী জো এঙ্গেলকে। ইলেক্টনিক্স পণ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠান মোটোরোলার জ্যেষ্ঠ প্রকৌশলী মার্টিন কুপার নিউইয়র্কে যোগাযোগে নতুন যুগের সূচনা করেন।

মোটোরোলার ডায়নাটিএসির ওজন ছিল ১ দশমিক ১৫ কেজি, নয় ইঞ্চি লম্বা এবং ফোনের টকটাইম ছিল ৩৫ মিনিট এবং চার্জ থাকতো ১০ ঘণ্টা। ১৯৭৩ সালে ৩ এপিল তৈরি করা হলেও ফোন সেটটি বাজারে আসে ১৯৮৪ সালে। তখনে এর বাজারমূল্য ছিল প্রায় চার হাজার ডলার। মোবাইল ফোনটি পরে ব্রিক নামে পরিচিত হয়।ব্রিক নামে যে বাণিজ্যিক মোবাইল ফোনটি বাজারে আসে ১৯৮৩ সালে, তার মূল্য ছিল ৪ হাজার ডলার! এর ওজন ছিল ৭৮৫ গ্রাম, মানে প্রায় ১ কেজি।আর ১৯৯২ সালের ৩ ডিসেম্বর নেইল পাপওয়ার্থ মোবাইল ফোনে প্রথম এসএমএস করেন। প্রথম পাঠানো সেই এসএমএস-এ পাপওয়ার্থ লিখেছিলেন ‘Merry Christmas’। প্রথম ক্যামেরা ফোনটি তৈরির কৃতিত্ব ফিলিপ কান’র। ১৯৯৭ সালে এটি দিয়ে তিনি তার সদ্যজাত মেয়ের ছবি তোলেন।



নব্বইয়ের দশক থেকেই দ্রুত বাড়তে থাকে মোবাইল ফোনের ব্যবহারকারীর সংখ্যা। উন্নত দেশগুলোর পাশাপাশি উন্নয়নশীল এবং অনুন্নত দেশগুলোতেও সহজলভ্য হয়ে ওঠে মোবাইল ফোন। গত বছরের অক্টোবরে বিশ্বব্যাপী সক্রিয় মোবাইল সংযোগের সংখ্যা পেরিয়ে যায় ছয়শ কোটি। বিশ্বের জনসংখ্যা বর্তমানে সাতশ কোটির বেশি হলেও জাতিসংঘের ইন্টারন্যাশনাল টেলিকমিউনিকেশন ইউনিয়ন ধারণা করছে, চলতি বছরের শেষের দিকে মোবাইল সংযোগের সংখ্যা পেরিয়ে যাবে বিশ্বের মোট । আমাদের দেশেও প্রায় ৭০ শতাংশ মানুষের কাছে পৌঁছে গেছে মোবাইল ফোন।বিশ্বের সবচেয়ে খরুচে নম্বর ৬৬৬-৬৬৬৬। ২০০৬ সালের ২৩ মে কাতারে এক নিলামে ১০ মিলিয়ন কাতার রিয়েলে (প্রায় ২.৭৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার) বিক্রি হয় এই নম্বর।

এখন আর মোবাইল ফোন শুধু কথা বলার যন্ত্র নয় বরং ছবি তোলা, গান শোনা, গেম খেলা, ইমেইল করা, ভিডিও দেখার মতো নানা কাজে মোবাইল ফোন ব্যবহার করা হয়। প্রতিনিয়ত বাড়ছে এর ব্যবহার।
Ashikul Islam
Graphics Designer
oBak Graphics Design ltd.
Study now
Diploma in Civil Engineering at
Bangladesh Skill Development Institute(BSDI).
Seven Semester.
Contact: 01734-666 667
Web: Information About me