Author Topic: কিভাবে কাজ করে রিভলভার ???  (Read 1172 times)

Sanjoy Bachar

  • Teachers
  • Hero Member
  • *
  • Posts: 578
  • I want to show my performance at any where........
কিভাবে কাজ করে রিভলভার ???
« on: February 27, 2014, 11:57:05 PM »
কিভাবে কাজ করে রিভলভার ???
[/color][/size]

নানা সিনেমা অথবা কম্পিউটার গেমসে দেখা যায়- শত্রুপক্ষ আর মিত্রপক্ষের মাঝে গোলাগুলি চলছে, উভয়পক্ষের বেশ
কজন আহত-নিহত হচ্ছে। অবশেষে কোনো এক সময় হয়তো সিনেমাটি শেষ হয় অথবা গেমটি শেষ করে আমরা কম্পিউটারের সামনে থেকে উঠি।
কিন্তু কখনো কি চিন্তা করে দেখেছেন যে, কিভাবে কাজ করে গোলাগুলিতে ব্যবহৃত এই বন্দুকগুলো? শুধু কি ট্রিগার চাপলেই গুলি বের হয়? নাকি এর পেছনে কাজ করে আরো কোনো বিজ্ঞান?
এসব বিষয় নিয়ে একটু গল্প-গুজব করতেই আজকের এই লেখাটি যেখানে মোটামুটি সহজ ভাষায় একটি রিভলভারের কাজ করার পদ্ধতি নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। আর দেরি না করে চলুন হয়ে যাই আমরা Weapon Scientist...

একেবারে প্রথম দিককার রিভলভারগুলো ছিলো একটু বেঢপ ধরণের। এগুলোর কাজ করার ধরণ, রিলোড করার পদ্ধতি- সবকিছুই বর্তমানকালে ব্যবহৃত রিভলভারগুলোর চাইতে বেশ জটিল ছিলো। আজকের আলোচনার বিষয়বস্তু যেহেতু আধুনিক রিভলভারকে কেন্দ্র করে, তাই আর পুরনো ডায়েরির পাতা আমরা ঘাটাতে যাচ্ছি না।

আধুনিক রিভলভারগুলোতে আর আগের মতো এত ঝামেলা পোহাতে হয় না। এখানে বরং কারট্রিজগুলোকে চেম্বারে এমনভাবেই রাখা করা হয় যাতে তারা রিভলভারের ব্যারেলের সাথে একই লাইন বরাবর থাকে। আর এই চেম্বার অর্থাৎ সিলিন্ডারের ঠিক পেছনেই স্প্রিংযুক্ত ছোট একটি Hammer ( এখানে বাংলায় হাতুড়ি বললাম না, কারণ তাহলে লোহা পেটানোর সেই বড় হাতুড়ির ছবিই চোখের সামনে ভেসে উঠবে) আটকানো থাকে, এটিও ব্যারেলের সাথে সরলরেখা বরাবর থাকে।

এবার ব্যারেল নিয়ে একটু কথা বলা যাক। ব্যারেল বলতে আসলে বুলেটটি শেষ পর্যন্ত যে নল দিয়ে বেরিয়ে যাচ্ছে তাকেই বোঝানো হচ্ছে। এই ব্যারেলের ভেতরটি সর্পিলাকারে খাঁজকাটা হয়ে থাকে (চিত্রের মতো)। বুলেটটি যখন নল দিয়ে বেরিয়ে যেতে থাকে, তখন এর মাঝে এক প্রকার ঘূর্ণন তৈরী করে গতিকে আরো বেশি স্থায়িত্ব দিতেই মূলত এটি করা হয়ে থাকে। ব্যারেল যত বড় হয়, বুলেটের স্থায়িত্বও তত বাড়ে। আবার ব্যারেল বড় হলে বুলেটের গতিও বৃদ্ধি পেয়ে থাকে। কারণ তখন ভেতরের বায়ুচাপ বুলেটের উপর আরো বেশি সময় ধরে কাজ করতে পারে। কিন্তু গোলাগুলির মাঝে হঠাৎ আবার বায়ুচাপের কথা কেন? সেই আলোচনায় আসছি একটু পরেই।

রিভলভারের কাজ করার পদ্ধতি জানার আগে আর একটি জিনিস জানা যাক। সেটি হলো বুলেটের মূল গঠন কেমন সেটি। সঙ্গত কারণেই আমরা এই আলোচনার খুব গভীরে যাবো না, কেবল নিচের ছবি অনুযায়ী কিছু কথা বলছি।
বুলেটের একেবারে উপরেই থাকে তার ডিম্বাকৃতির অংশটি যা আমরা সচরাচর দেখে থাকি। এর ঠিক নিচেই থাকে বুলেট কেস যার মাঝে ভরা থাকে বুলেটের বিষ্ফোরক পদার্থ। একেবারে নিচের বৃত্তাকার প্রান্তটিকে বলা হচ্ছে Rim। আর Rim-এর মাঝামাঝি জায়গা, যেখানে Hammer দিয়ে আঘাত করা হচ্ছে তাকে বলা হয় Primer।

১) গুলি করার জন্য প্রথমে যখন ট্রিগার টেনে ধরা হয় তখন এটি Hammer-কে ঠেলে দিচ্ছে পেছনে।
২) এই Hammer-এর অপর প্রান্তে লাগানো থাকে একটি স্প্রিং। Hammer যখন পেছনে যেতে থাকে তখন এই স্প্রিংটি সংকুচিত হতে থাকে।


৩) ঠিক একই সময়ে রিভলভারের ট্রিগারের সাথে লাগানো একটি Pawl সিলিন্ডারের Ratchet-কে ধাক্কা দিয়ে তাকে ঘুরতে সাহায্য করে।
Pawl শব্দটির আভিধানিক অর্থ খাঁজকাটা চাকা যাতে কোনো কিছু পেছনে গড়িয়ে না যায়। এখানে Pawl সিলিন্ডারকে উল্টোদিকে ঘুরতে দিচ্ছে না।
আর Ratchet বলতে বোঝায় হুকযুক্ত দাঁতালো চাকাকে যা হুক থাকার জন্য কেবল একদিকেই ঘুরতে পারে। চিত্র থেকে দেখা যাচ্ছে, এটি লাগানো আছে সিলিন্ডারের গায়ে।


৪) এর কিছু সময় পরই আরেকটি Pawl সিলিন্ডারের গায়ে চাপ দিয়ে তাকে থামিয়ে দিচ্ছে। তবে এই থামানোর কাজটি কিন্তু ইচ্ছেমতো হচ্ছে না। বরং যখন Hammer, বুলেট আর ব্যারেল একই সরলরেখা বরাবর আসছে তখনই এই থামিয়ে দেবার কাজটি সংঘঠিত হচ্ছে।
৫) যখনই ট্রিগারটি পুরোপুরি টানা হয়ে যাচ্ছে, তখনই এটি Hammer-কে ছেড়ে দিচ্ছে।

৬) Hammer-এর সাথে লাগানো স্প্রিংটি হঠাৎ সংকুচিত থেকে প্রসারিত হওয়ায় এটি Hammer-কে সজোরে সামনে ঠেলে দেয়। Hammer-টি ফায়ারিং পিনের মাধ্যমে বুলেটের Primer-এ আঘাত করে। তখন Primer-টি বিস্ফোরিত হয়ে বুলেট কেসের ভেতরে থাকা বিষ্ফোরক পদার্থের মাঝে অগ্নিসংযোগ করে দেয়।
৭) বুলেট কেসের ভেতরের বিষ্ফোরক পদার্থে অগ্নিসংযোগের প্রায় সাথে সাথেই এটি বেশ উচ্চ চাপযুক্ত গরম বায়ুর উৎপত্তি ঘটায়। এই উচ্চ চাপ তখন বুলেটটিকে ব্যারেলের মধ্য দিয়ে সামনের দিকে যেতে বাধ্য করে।
আর এভাবেই চেম্বার থেকে ব্যারেল দিয়ে বের হয়ে শেষ পর্যন্ত লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হেনে থাকে বুলেটটি।


এতক্ষণ ধরে আমরা জানলাম একটি আধুনিক রিভলভারের কাজ করার পদ্ধতি নিয়ে। পড়ার সময় দেখা গেলো একটির পর আরেকটি ধাপ ঘটে চলেছে পর্যায়ক্রমে, কখনো হয়তো কল্পনা করতেও একটু কষ্ট হয়েছে। কিন্তু বাস্তবে সবই ঘটে যাচ্ছে চোখের পলকে। আসলেই বিস্ময়ের ব্যাপার...

তথ্যসুত্রঃ www.howstuffworks.com
Sanjoy Bachar Sanju
BSc. & MSc. in Physics
Shahjalal University of Science & Technology,Sylhet
Instructor (Physics)
Bangladesh Skill Development Institute(BSDI)
Contact number: +8801716747884
Email: bachar@bsdi-bd.org
          sanjubachar@gmail.com